×
  • প্রকাশিত : ২০২৩-০১-১৮
  • ৩৩ বার পঠিত
স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিযেশনের অর্থায়নে ও রাজশাহী বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে শেখ কামাল ২য় বাংলাদেশ যুব গেমসের বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা গতকাল বুধবার ৮টি জেলার তরুন তরুনীদের নিয়ে ফুটবল, সাঁতার ও এ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। তরুনদের সাঁতারে ৫০মিঃ ফ্রিষ্টাইলে রাজশাহীর পারভেজ, ৫০মিঃ ব্যাকে বগুড়ার রাব্বি,৫০মিঃ ব্রেষ্টে বগুড়ার রায়হান ও ৫০মিঃ বাটারে বগুড়ার রাব্বি ১ম স্থান অধিকার করেন। তরুনীদের সাঁতারে ৫০ মিঃ ফ্রিষ্টাইলে বগুড়ার মালতী, ৫০ মিঃ ব্যাকে বগুড়ার ইশারতি জাহান, ৫০ মিঃ ব্রেষ্টে বগুড়ার মালতী ও ৫০ মিঃ বাটারে বগুড়ার ইশারতি ১ম স্থান অর্জন করেন।

তরুনদের ফুটবলে পাবনা ২-০ গোলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী ও বগুড়া গোল শুন্য ড্র করলে খেলা গড়াই ট্রাইব্রেকারে। ট্রাইব্রেকারে বগুড়া ৭-৬ গোলে হারায় রাজশাহীকে হারায় ও চাঁপাইনবাগঞ্জ ২-১ গোলে নওগাঁকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে অন্য দিকে পাবনা ফাইনালে উঠে। আজ বৃহস্পতিবার (১৯) জানুয়ারী) ফাইনালে পাবনা ও বগুড়া অংশ নেবে । আর এ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতা শারীরিক শিক্ষা কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। পুলিশ কমিশনার মোঃ আনিসুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে বেলুন ফেষ্টুন উড়িয়ে যুব গেমসের উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জি,এস, এম জাফরউল্লাহ এনডিসি।

এর আগে তিনি বলেন, জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন ক্রীড়াবিদ ছিলেন তার জৈষ্ঠ্যপুত্র শেখ কামাল এর নামে এই খেলার আয়োজন করা হয়েছে। এই খেলার মধ্য দিয়েই রাজশাহী বিভাগ সাফল্যের চাবি বয়ে আনবেন বলে আমি আশা করি।

এর আগে স্বাগত বক্তেব্যে রাজশাহী মহাপনগর আওয়ামী লীগ ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া বান্ধব পরিবারের সুযোগ্য সন্তান তিনিও খেলাধুলা পছন্দ করেন ও খেলোয়াড়দের নিজহাতে রান্না করে খাওয়ান। আমি চাই আজকের খেলার মধ্য দিয়ে রাজশাহী বিভাগের ছেলেমেয়েরা স্বর্নের চাবিটি ছিনিয়ে নিয়ে আসবে আর প্রধানমন্ত্রীর হাতের রান্না করা খাবার খাবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ ও বিভাগীয় মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সিনিয়র সহ-সভাপতি বলেন বঙ্গবন্ধু পরিবার একটি ক্রীড়া বান্ধব পরিবার। তারা খেলাধুলাকে সব সময় প্রাধান্য দিয়ে আসছে। প্রধানমন্ত্রী দেশের খেলা হলেই নিরাপত্তা উপেক্ষা করে গ্যালারীতে গিয়ে খেলা দেখতেন ও খেলোয়াড়দের উৎসাহ যোগাতেন। এ সময় বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের প্রতিনিধি খন্দকার ইদ্রিশ আলী, রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক মোঃ ওয়াহেদুন নবী, বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার কোষাধ্যক্ষ মোঃ হাসিনুর রহমান টিংকু, নিবার্হী সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম সরকার, মোঃ রোকনুজ্জামান, হকি সম্পাদক মোঃ তৌফিকুর রহমান, বাস্কেটবল ফেডারেশনের যুগ্ম-সম্পাদক মোঃ খায়রুল আলম ফরহাদসহ অন্য কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat